সকালে হাজিরা দিয়ে ডাক্তাররা কোথায় যায়? নজরে রাখার নির্দেশ দুদক কমিশনারের

0
7

মোঃ রাব্বি আলম ডিজু ,স্টাফ রিপোর্টার: সকালে হাসপাতালে হাজিরা দিয়ে ডাক্তাররা কোথায় যায়? তা নজরে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশন-(দুদক) কমিশনার (তদন্ত) এ. এফ.এম. আমিনুল ইসলাম।হাসপাতালের অনিয়মের বিষয়ে অভিযোগ নিয়ে দুদকের গনশুনানীতে অভিযোগকারীদের প্রতিউত্তরে তিনি বলেছেন, আমি দেশের অন্তত ২৫ টি সরকারী হাসপাতাল গিয়েছি। এসব হাসপাতালে ব্যাপক অনিয়মে ভরপুর। সরকারি হাসপাতালগুলোর কেন এমন দশা?দুদক কমিশনার কক্সবাজার সদর হাসপাতালে সৃষ্ট জটিলতা দ্রুত সমাধাণ করার নির্দেশ দেন।‘জনতাই শক্তি রুখবে দুর্নীতি’-এ স্লোগানকে সামনে রেখে কক্সবাজারে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর গণশুনানী চলছে।বৃহস্পতিবার (১৮এপ্রিল) সকাল ১০টায় কক্সবাজার সদর উপজেলার এড.সাহাব উদ্দীন মিলনায়তনে গণশুনানী শুরু হয়। চলবে বেলা ১টা পর্যন্ত।গণশুনানীর শুরুতে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা বঞ্চিত সেবা প্রার্থীদের অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠে অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ।সম্প্রতিক ভুল চিকিৎসা রোগীর মৃত্যু যথাযথ সমস্যা সামাধান না করে উল্টো ডাক্তাদের আন্দোলন নিয়ে প্রশ্ন তুলে উপস্থিত সেবা বঞ্চিতরা।শুরুতে জয়নাল আবেদীন নামের এক ব্যক্তি অভিযোগ করেন, সদর হাসপাতেলে বেশ কয়েকবার গিয়েও তিনি চিকিৎসা পাননি। ডাক্তাররা তার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে হাসপাতাল ত্যাগ করতে বাধ্য করেছেন।আরেক অভিযোগকারী নাজিম উদ্দীন বলেন, কথায় কথায় সদর হাসপাতালের ধর্মঘটের কারণে দুই সপ্তাহে ২০জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসাসেবা প্রার্থীদের ধরে মারধর করে জেলে পাঠিয়েছে ডাক্তাররা।তিনি আরো অভিযোগ করেন, রোগীর স্বজনদের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা দেয়া হয়েছে। সদর হাসপাতালে খাবারের মানও খুবই নিম্ন মানের। দেখভালের কেউ যেন নেই।উত্তর পর্বে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের  ডাঃ বিধান পাল সন্তোষজনক উত্তর দিতে না পারায় উপস্থিত সবার মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করে।গণশুনানিতে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেনসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত আছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here