শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে নন-এমপিও শিক্ষকদের ১ মাসের আল্টিমেটাম দিয়ে আন্দোলন স্থগিত

0
8

আমার নিউজ ডেক্স: এমপিওভুক্তির দাবিতে টানা ৫ দিন আন্দোলন চালিয়ে নেওয়ার পর শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে আগামী এক মাসের জন্য আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষকেরা। রোববার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অনশনরত শিক্ষকদের মাঝে উপস্থিত হয়ে দাবি মেনে নিতে যত দ্রুত সম্ভব কার্যকরী পদক্ষেপ নেবেন আশ্বাস দিলে এদিন সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের পক্ষ থেকে আন্দোলন আপাতত স্থগিতের ঘোষণা দেন সংগঠনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী ডলার। শিক্ষামন্ত্রী দিপু মণি আন্দোলনরত শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, যে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনো এমপিওভুক্ত হয়নি সেগুলো সম্পর্কে আমরা জানি।  যেহেতু এর সঙ্গে অর্থনৈতিক ব্যাপার জড়িত আছে।  আমরা আশা করছি এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে এমপিওভুক্তির বিষয়ে ঘোষণা দিতে পারবো।  আমরা সামনের অর্থবছরেই এমপিও ভুক্তি করব।  আমি প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাচ্ছি আমাদের সর্বোচ্চটা দেওয়ার চেষ্টা করব। তিনি আরও বলেন, আমি নিজে একজন শিক্ষিকার সন্তান।  আমরা সকলে এই সমাজের মানুষ।  আপনারা আমাদের একটু সময় দেন।  আপনাদের কাছে অনুরোধ এই কর্মসূচি শেষ করে বাড়িতে ফিরে যাবেন।  স্কুলে গিয়ে কাজ শুরু করুন। শিক্ষামন্ত্রীর এমন আশ্বাসে প্রথমে শিক্ষকেরা আন্দোলন স্থগিত করতে রাজি না হলেও পরবর্তীতে সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা শেষে ১ মাসের আল্টিমেটাম দিয়ে আন্দোলন স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয়।  পরে সন্ধ্যা ৬ টার দিকে আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, এমপিওভুক্তির দাবিতে আন্দোলনরত নন-এমপিও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারীরা গত কয়েক বছর ধরে আন্দোলন করে আসছেন। সর্বশেষ গত বছর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রায় ১ মাস ধরে আন্দোলন করার পর ১১ জুলাই সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও শিক্ষাসচিব সোহরাব হোসেনের সঙ্গে তাদের এমপিওভুক্তি নিয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়।  এরপর এদিন বিকেলে জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী শিক্ষকদের অনশন ভাঙান। সরকারের পক্ষ থেকে দাবি পূরণে আশ্বাস দেন। এর প্রায় এক বছর হতে চললেও দাবি পূরণ না হওয়ায় গত ২০ মার্চ থেকে আবারও জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নেয়। তাদের দাবি, সারা দেশের ১৫-২০ হাজার নন-এমপিও প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারী বিনা বেতনে চাকরি করছেন।  দ্রুত তাদের এমপিওভুক্ত করে নেওয়া হোক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here