ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের হিজাবের আন্দোলন কারীদের হয়রানী করার অভিযোগ

0
50
ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের হিজাবের আন্দোলন কারীদের হয়রানী করার অভিযোগ
ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের হিজাবের আন্দোলন কারীদের হয়রানী করার অভিযোগ

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকের হিজাব বিতর্কে উত্তেজনার পারদ চড়েছে অনেকটাই। হিজাবের পক্ষে-বিপক্ষে চলছে বিক্ষোভ-পাল্টা বিক্ষোভও। আর এবার কর্ণাটকের উদুপির গভর্নমেন্ট গার্লস প্রি-ইউনিভার্সিটি কলেজে হিজাব পরার দাবিতে আন্দোলন করা ছয় মুসলিম ছাত্রীর ব্যক্তিগত তথ্য অনলাইনে ফাঁস করার অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীদের অভিভাবকেরা ইতোমধ্যেই এ বিষয়ে কর্ণাটক পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় বার্তাসংস্থা পিটিআই এবং সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

এ বিষয়ে উদুপির পুলিশ সুপার এন বিষ্ণুবর্ধন বলেন, ‘অভিভাবকদের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ওই ছাত্রীদের কাছ থেকে এ সংক্রান্ত অনলাইন-তথ্য চাওয়া হয়েছে। সেগুলো হাতে পাওয়া গেলেই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উদুপির পুলিশ সুপার এন বিষ্ণুবর্ধনের কাছে অভিযোগ দায়ের করার পর শুক্রবার এক অভিভাবক বলেন, ‘আমার মেয়ে ও তার বান্ধবীদের নাম, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট, মোবাইল নম্বর-সহ নানা তথ্য বেশ কিছু মানুষ অনলাইনে ছড়িয়ে দিয়েছে। আমার আশঙ্কা, ভবিষ্যতে তাদের হুমকি দিতে এসব তথ্য ব্যবহার করা হবে।

মূলত গত জানুয়ারি মাসে কর্ণাটকের উদুপির ওই কলেজে হিজাব পরিহিত মুসলিম ছাত্রীদের ক্লাস করতে না দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে বিতর্কের সূত্রপাত হয়। জেলা প্রশাসনের ‘বার্তা’ পেয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষই হিজাব পরে ক্যাম্পাসে না ঢোকার নির্দেশনা জারি করেছিল বলে অভিযোগ ওঠে।

সেসময় কয়েকজন মুসলিম ছাত্রীকে হিজাব পরে ক্যাম্পাসে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়। এরপর ওই ছয় মুসলিম ছাত্রী কলেজ কর্তৃপক্ষের বিতর্কিত সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেছিলেন। এরপর তাদের সমর্থনে বিক্ষোভ শুরু করেন স্থানীয় মুসলিম ছাত্ররা। পাল্টা রাজ্যজুড়ে হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলো হিজাব নিষিদ্ধের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করে।

পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভের মধ্যে হিজাব-বিতর্কের ইতি টানতে চলতি মাসে কর্ণাটকের সরকারি কলেজগুলোতে ইউনিফর্ম বিষয়ে নির্দেশনা জারি করে রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার।

আরো পড়ুন https://www.dainikbanglarmukh.com/%e0%a6%95%e0%a6%b0%e0%a7%8d%e0%a6%a3%e0%a6%be%e0%a6%9f%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%9a%e0%a6%b2%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a8-%e0%a6%b9%e0%a6%bf%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%ac-%e0%a6%86%e0%a6%a8%e0%a7%8d/

কর্ণাটক শিক্ষা আইন ১৯৮৩-এর কথা উল্লেখ করে ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কর্তৃপক্ষের নির্ধারণ করে দেওয়া ইউনিফর্ম পরেই শিক্ষার্থীদের কলেজে আসতে হবে। যেসব কলেজে নির্দিষ্ট কোনো পোশাকবিধি নেই, সেখানে এমন কোনো পোশাক পরা যাবে না যাতে ‘শিক্ষাঙ্গনের ভারসাম্য, ঐক্য এবং শৃঙ্খলা নষ্ট’ হয়।

গত এক মাসের বেশি সময় ধরে কর্ণাটকের বিভিন্ন স্কুল কলেজে একদিকে হিজাব পরে ক্লাস করার অনুমতির দাবিতে আন্দোলন করছে মুসলিম ছাত্রীরা। অন্যদিকে হিন্দু শিক্ষার্থীরা গেরুয়া ওড়না পরে হিজাববিরোধী আন্দোলন করছে।

উদুপির এই আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে রাজ্যের মান্দিয়া এবং শিভামোগগা এলাকায়। সেখানকার কলেজ কর্তৃপক্ষ হিজাব নিষিদ্ধ করে। যদিও আইনে হিজাব পরে মুসলিম ছাত্রীদের ক্লাসে আসতে কোনও বাধা নেই।

আন্তর্জাতিক ডেক্স:

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here