ঝিনাইদহে ভাতিজার কোদালের আঘাতে চাচা খুন

0
19

জেলা প্রতিনিধি,ঝিনাইদহ:

ঝিনাইদহে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভাতিজার কোদালের আঘাতে চাচা আওলাদ মন্ডল (৬৫) নিহতের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (১০ জানুয়ারী) বিকেলে সদর উপজেলার ২নং মধুহাটি ইউনিয়নের যাদবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আওলাদ মন্ডল উপজেলার যাবদপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ মন্ডলের ছেলে।

আওলাদ মন্ডলের ছেলের বউ হামিদা পারভিন জানায়, তাদের সাথে শহীদ মন্ডলদের দির্ঘদিন ধরে জমিজমা বিষয় নিয়ে যোগযোগ চলে আসছিল। এরমধ্যে শহিদ স্থাণীয় ক্যাম্পে ও থানাতে অভিযোগ করেছে। কিন্তু তাদের কাছে উপযুক্ত প্রমাণ না থাকায় তারা বিচারে জমি পাইনি। এরি জের ধরে বেশকিছু দিন ধরে তার শ্মশুরকে মারার জন্য ঘুরছিলো। আজ দুপুরে বাড়িতে রান্না করার খড়ি আনতে সে মাঠে যায়। তখন শহিদ সুযোগ পেয়ে তাকে কোদাল দিয়ে মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায়। মাঠের লোকজন দেখতে পেয়ে, তাকে সেখান থেকে নিয়ে ডাকবাংলা ইসলামী হাসপাতলে পরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পরপরই তিনি মারা যান।

মধুহাটি ইউপি সদস্য আয়ুব হোসেন জানান, মাঠের ১০ কাঠা জমি নিয়ে চাচা আওলাদ মন্ডল ও তার ভাতিজা শহীদের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার দুপুরে বিরোধপুর্ণ ওই জমিতে গেলে চাচা ও ভাতিজার বাক-বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে ভাতিজা শহীদ কোদাল দিয়ে আওলাদের মাথায় আঘাত করে। এতে সে গুরুতর আহত হয়। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সোহেল রানা জানান, চাচা ভাতিজার জমিজমা বিরোধের জের ধরে ভাতিজার কোদালের আঘাতে চাচা আওলাদ মন্ডল আহত হলে। তাকে স্থাণীয় হাসাপাতালে পরে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অস্থায় মারা যান। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। আসামী শহিদ পলাতক রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here