ছেলের জন্য সারাবছর রোজা রাখা সেই মায়ের চোখের পানি না শুকাতেই এহকালের মায়া ছেড়ে বিদাই নিতে হলো মা কে

0
8

আমার নিউজ ডেক্স:- ছেলের জন্য সারাবছর রোজা রাখা সেই মা, চোখের পানি না শুকাতেই এহকালের মায়া ছেড়ে বিদাই নিতে হলো মা কে। ছেলেকে ফিরে পেয়ে দীর্ঘ ৪৪ বছর ধরে সারা বছর রোজা রাখা মা ভেজিরণ নেছা ছেলেকে ফেলে না ফেরার দেশে চলে গেলেন। সোমবার বিকেলে বার্ধক্যজনিক কারণে নিজ বাড়ি সদর উপজেলার বাজার গোপালপুরে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি ৩ ছেলে ও ৩ মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। সোমবার রাতে গ্রামের গোরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।
উল্লেখ্য, তার বড় ছেলে ১২ বছর বয়সে হারিয়ে যান। অনেক খোঁজাখুজির পর দেড় মাস পর তিনি গ্রামের মসজিদ ছুঁয়ে প্রতিজ্ঞা করেন তার ছেলে ফিরে এলে যতদিন বেঁচে থাকবেন ততদিন রোজা রাখবেন। ওইদিনই তার ছেলেকে খুঁজে পান। এরপর থেকে তিনি রোজা রাখা শুরু করেন। শুধুমাত্র ইসলাম ধর্মের বিধান মতে বছরে কয়েকটি রোজা ছাড়া দীর্ঘ প্রায় ৪৪ বছর রোজা রেখেছেন।
হাটগোপালপুর গ্রামের বেসরকারি চাকুরীজি মঞ্জুর ঢালী বলেন, আমার বুদ্ধি জ্ঞান হবার পর থেকেই দেখছি ভেজিরণ নেছা রোজা রাখছেন। শত অভাব অনটনের মধ্যে, পরের বাড়িতে কাজকর্ম করে ছেলে মেয়েদের বড় করেছে। দীর্ঘ প্রায় ৪৪ বছর মুসলামান ধর্মের বিধান মেনে, বড় ছেলে শহিদুল হারিয়ে যাবার পর ফিরে পেয়ে রোজা রেখেছেন। তিনি আরো বলেন, মা তো মা-ই। মায়ের তো কারো সাথে তুলনা হয়না। তবে ভেজা ছেলের জন্য যে এত বড় সিন্ধান্ত নিয়েছে, তা একমাত্র মা বলেই সম্ভব হচ্ছে। তার মত আর মা আছে বলে আমার জানা নেই।
সখিরন নেছার ছেলে শহদিুল ইসলাম বলেন, আমার মা আমার জন্য এত কষ্ট করেছেন। তিনি আজ আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন। আল্লাহ তাকে বেসস্ত নসিব করুন। মায়ের জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here