কাদের সিদ্দিকী:পিঁপড়া মরলেও সরকারকে জবাব দিতে হবে

0
7

আমার নিউজ ডেক্স: দেশের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে নেতা তৈরি হবে এমন কোনো ব্যবস্থা বর্তমানে নেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্বাচিত ভিপি নুরুল হক প্রধানমন্ত্রীর কাছে তার জীবনের নিরাপত্তা চায়।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম নির্বাচিত ভিপি আ স ম আব্দুর রব তার জীবনের নিরাপত্তা চেয়েছিলেন তৎকালীন ইয়াহিয়া খানের কাছে। মুক্তিযোদ্ধারা এমন সরকার চেয়েছিল- দেশের একটি পিঁপড়া মরলেও জবাব দিতে হবে সরকারকে। তা আমরা এখনও করতে পারিনি।

মঙ্গলবার দুপুরে আশুলিয়ায় সাভার গণবিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী এসব কথা বলেন।

গণবিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি বীর মুক্তিযোদ্ধা বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তমকে সংবর্ধনা দিয়েছে।

কাদের সিদ্দিকী বীর উত্তম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ইংল্যান্ড থেকে দেশে এসে যুদ্ধকালীন আহত ৪০-৫০ হাজার মুক্তিযোদ্ধার চিকিৎসা দিয়ে পঙ্গুত্ব থেকে রক্ষা করেছেন। তিনি যে প্রতিষ্ঠান গড়ে গেলেন তা থাকবে তবে তিনি থাকবেন না। তার অবদান জাতি স্মরণ করবে একদিন।

রাজনৈতিক মতাদর্শে ভিন্নতা থাকলেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জাতির পিতা হিসেবে স্বীকার করতেই হবে বলে মন্তব্য করে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেন, নিজের সত্তাকে যেমন জানতে হবে, তেমনি স্বীকারও করতে হবে। তবে যে দেশের স্বপ্ন নিয়ে আমরা যুদ্ধ করেছিলাম সেই ধরনের দেশ এবং জবাবদিহিতামূলক সরকার আমরা এখনও পাইনি।

তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সরিয়ে তারেক জিয়াকে প্রধানমন্ত্রী বানাতে হবে, সেই রাজনীতিতে আমার বিশ্বাসী নেই। আমি পরিবর্তনে বিশ্বাসী। বাংলার প্রতিটি মানুষ ক্ষুধা ও দারিদ্র্য থেকে মুক্তি পাবে, প্রতিটি মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যুর নিশ্চয়তা থাকবে এমন একটা দেশ হবে এটাই আমি স্বপ্ন দেখি।

গণবিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাচিত ছাত্র সংসদকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে শুধু পড়াশোনার চর্চা করলে চলবে না। দেশকে এগিয়ে নেয়ার মতো যোগ্য নেতৃত্ব এখান থেকেই তৈরি হতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভিসি দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার দেলোয়ার হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্তুজা আলী বাবু, ভিপি জুয়েল রানা প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here